1. ajkerfaridpur2020@gmail.com : Monirul Islam Titu : Monirul Islam Titu
  2. jmitsolution24@gmail.com : support :
  3. titunews@gmail.com : Monirul Islam Titu : Monirul Islam Titu
জনপ্রতিনিধিগণ ভালো কাজ করলে জেলা প্রশাসন তার পাশে থাকবে - জেলা প্রশাসক অতুল সরকার। - আজকের ফরিদপুর
শনিবার, ০৮ অক্টোবর ২০২২, ০৫:২৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ বোর্ড :
আজকের ফরিদপুর নিউজ পোর্টালে আপনাদের স্বাগতম । করোনার এই মহামারীকালে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। সচেতনে সুস্থ থাকুন।

জনপ্রতিনিধিগণ ভালো কাজ করলে জেলা প্রশাসন তার পাশে থাকবে — জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।

  • Update Time : বুধবার, ১৭ আগস্ট, ২০২২
  • ৯২ জন পঠিত
জনপ্রতিনিধিগণ ভালো কাজ করলে জেলা প্রশাসন তার পাশে থাকবে -- জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।
জনপ্রতিনিধিগণ ভালো কাজ করলে জেলা প্রশাসন তার পাশে থাকবে -- জেলা প্রশাসক অতুল সরকার।

নিরঞ্জন মিত্র (নিরু), ফরিদপুর: ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার ইএএলজি প্রকল্পের অবহিতকরণ কর্মশালায় বলেছেন, যে সকল জনপ্রতিনিধিগণ ভালো কাজ করবে জেলা প্রশাসন তার পাশে থাকবেন। খারাপ কাজ করলে বা কোন কাজে গাফিলতি করলে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। নারী সদস্যগণ পরিষদের কাজে বেশী বেশী অংশগ্রহণ করে নিজেদের জনসেবায় নিয়োজিত করার জন্য বলেন। তিনি, যে সকল উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদ নিয়মিত ওয়েব পোর্টাল হালনাগাদ করবেন না বা প্রয়োজনীয় তথ্য আপলোড করবেন না তাদের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্থানীয় সরকার বিভাগে অবহিত করার কথা বলেন এবং প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদ ও উপজেলা পরিষদ তাদের অফিস প্রাঙ্গনে বাজেট এবং প্রকল্পের তালিকা টানিয়ে রাখার জন্য জানান।

সরকারের সকল পরিপত্র, নিদের্শনা, অফিস আদেশ, আইন, বিধি-বিধান অনুসরণ করে সকল কাজ বাস্তবায়ন করার জন্য সকলকে নির্দেশ দেন। সকল ইউপির ওয়েব পোর্টাল আগামী এক মাসের মধ্যে হালনাগাদ করার জন্য নির্দেশ দেন এবং এই বিষয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালককে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বলেন। স্থানীয় সরকার বিভাগ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ‘কার্যকর ও জবাবদিহিমূলক স্থানীয় সরকার (ইএএলজি) প্রকল্পের সহযোগিতায় এবং জেলা প্রশাসনের আয়োজনে, (১৬ আগষ্ট) মঙ্গলবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ইএএলজিভুক্ত ফরিদপুর পিছিয়ে পড়া উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের সম্প্রতিককালে অনুমোদিত বিভিন্ন পরিপত্র, নির্দেশিকা এবং অফিস আদেশ বিষয়ক অবহিতকরণ দিনব্যাপী উদ্বোধনী কর্মশালা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধান অতিথি আরো বলেন, কিছু কিছু জনপ্রতিনিধিগণ ভাবেন, যে কাজে আর্থিক সংশ্লেষ নেই, মনিটরিং নেই, সে কাজগুলি তাদের দায়িত্বের মধ্যে পড়েনা। অথচ সরকার জনপ্রতিনিধিদের ভাতা প্রদান করেন তার এলাকার উন্নয়নমূলক অনেক কাজ বাস্তবায়ন, মনিটরিং, স্বচ্চতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার জন্য। তিনি আরো বলেন, গ্রামে নারীদের নির্যাতন করা হয়। এই নির্যাতন শুরু হয় নারীদের ঘর থেকেই। অনেক ক্ষেত্রে নারীরাই এই নির্যাতনের জন্য দায়ী হন। ৯০% নারী নির্যাতনের সূত্রপাত হয় ঘরের শাশুড়ী/ননদ বা অন্যান্য নারীগণ দ্বারা। পরে এতে পুরুষগণ জড়িয়ে পড়েন। নির্যাতিত নারীদের যে পর্যন্ত উন্নয়ন না করা যাবে সে পর্যন্ত দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ হবে। প্রধান অতিথির বক্তব্যে আরো বলেন, স্থানীয় প্রশাসন স্তরকে বেগবান করতে পারলে এবং জনপ্রতিনিধিগণ দায়িত্ববোধ থেকে কাজ করলে এলাকার উন্নয়ন নিশ্চিত হবে। অনেক সময় ইউনিয়ন ও উপজেলা পরিষদের নারী সদস্যদের কাজ দেয়া হয়না মর্মে অভিযোগ পাওয়া হয়।

ইউপি চেয়ারম্যান নারীদেরকে কাজ দেন না। এ কথাটা যারা বলেন তারা না জেনে বলেন। ইউনিয়ন পরিষদের স্থায়ী কমিটিতে নারীগণ সক্রিয় অংশগ্রহণ করে এলাকার সকল উন্নয়নমূলক কাজের তদারকি করতে পারেন, মতামত দিতে পারেন এমনকি প্রতিটি কাজের গুনগত মান নিশ্চিত করতে পারেন। এলাকার উন্নয়নে যে প্রতিষ্ঠান বা ঠিকাদার কাজ করুক না কেন এতে এলাকার জনপ্রতিনিধিগণ নিয়মিত মনিটরিং করলে কাজের স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও গুণগত মান নিশ্চিত হবে। তিনি পরিষদের বার্ষিক প্রতিবেদন তৈরী ও পাঁচসালা উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রণয়ন করে আগামী এক মাসের মধ্যে জেলা প্রশাসক বরাবর প্রেরণ করার জন্য সকলকে নির্দেশ দেন। নব নির্বাচিত পরিষদ আইন-বিধি বিধান অনুযায়ি আগামী পাঁচ বছর কি কি কাজ করবেন তার একটি রোড ম্যাপ তৈরী করে পরিষদের ওয়েব পোর্টালে আপলোড করার জন্য নির্দেশ দেন।

এ ছাড়াও পরিপত্র অনুসরণ করে নিয়মিত গণশুনানী আয়োজন করে এলাকার সামাজিক সমস্যাসমূহ নিরসনের জন্য আহ্বান জানান জেলা প্রশাসক অতুল সরকার। ফরিদপুর স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক (উপসচিব) মোহাম্মদ আসলাম মোল্লার সভাপতিত্বে, অবহিতকরণ কর্মশালা অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) দীপক কুমার রায়, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট বিপুল চন্দ্র দাশ, সহকারী পরিচালক, স্থানীয় সরকার মোঃ মুজিবুল ইসলাম, জেলা পরিসংখ্যান কার্যালয়ের উপপরিচালক মীনাক্ষী বিশ্বাস, ইউএনডিপি ইএএলজি’র ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর মোঃ মনির হোসেন মজুমদার প্রশিক্ষণ প্রদান করেন। অবহিতকরণ শীর্ষক কর্মশালায় প্রথম দিন জেলার ইএএলজিভুক্ত উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, ইউপি সচিব ও সংরক্ষিত আসনের মহিলা মেম্বারগণ অংশগ্রহণ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© পদ্মা বাংলা মিডিয়া হাউজের একটি প্রতিষ্ঠান
Design & Developed By JM IT SOLUTION